1. multicare.net@gmail.com : সময়ের পথ :
বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ০৪:৪৪ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
নড়াইলে কোরবানির জন্য প্রস্তুত ৬৪ হাজার ৭৪৮টি পশু নড়াইলে অধ্যক্ষ স্বপন কুমার বিশ্বাসকে জুতার মালা পরানোর ঘটনার প্রতিবাদে বিশাল মানববন্ধন থানায় অভিযোগ দায়ের- নড়াগাতীতে কিশোরকে মারপিটের অভিযোগে মানববন্ধন! ঈদ উপলক্ষে আলাউদ্দিন আহমেদ শিক্ষাপল্লী পার্কে সংযোজন হতে যাচ্ছে দুটি রাইডার নতুন এমপিও তালিকা ২০২২ ফাইতং উচ্চ বিদ্যালয় নাম প্রকাশিত নড়াইলে দলিল লেখক খোকন চন্দ্র রায়কে ছুুরিকাঘাত কুমিল্লায় আনসার ভিডিপি কার্যালয়ের বৃক্ষরোপণ অভিযান অনুষ্ঠিত হয়েছে নড়াইলের কালিয়ার কয়েকটি বাজারে সরকারি জমিতে গড়ে ওঠেছে অসংখ্য অবৈধ স্থাপনা। কুষ্টিয়া হাইওয়ে পুলিশের ইনচার্জ ইদ্রিসের চাঁদাবাজির দৌরাত্ত্বে পরিবহন সেক্টর অসহায় র‍্যাবের অভিযানে সন্ত্রাসী সম্রাট ও মাদক ও অস্ত্রসহ গ্রেফতার

এক জ্যেষ্ঠ সহকারী সচিব ফেসবুকে ‘কুরুচিপূর্ণ’ কবিতা লিখে চাকরিচ্যুত হলেন

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১৬ জুন, ২০২২
  • ১৮ বার পড়া হয়েছে

ডেস্ক নিউজ,সময়ের পথঃসামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছদ্মনামে সরকারপ্রধানকে ইঙ্গিত করে ‘কুরুচিপূর্ণ’ ভাষায় কবিতা লিখে চাকরিচ্যুত হলেন এক জ্যেষ্ঠ সহকারী সচিব। তাঁর নাম মো. সাইদুর রহমান। জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের সাবেক এই উপপরিচালক সর্বশেষ জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) হিসেবে ছিলেন।

ওই ঘটনায় অসদাচরণের দায়ে তাঁকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। ১৩ জুন জারি করা ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, অসদাচরণের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাঁকে এই গুরুদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, সাইদুর রহমান ২০২০ সালের ৮ অক্টোবর সন্ধ্যা ৭টা ৪৬ মিনিটে তাঁর ফেসবুক আইডি ‘রহমান হেনরী’ থেকে ‘রহমান হেনরী’ ছদ্মনামে একটি কুরুচিপূর্ণ, অশোভন ও আপত্তিকর কবিতা প্রকাশ করেন। যা একদিকে একজন সরকারি কর্মচারীর পক্ষে অশোভন ও অকর্মকর্তাসুলভ আচরণ। এতে প্রশাসনের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হওয়ায় সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা অনুযায়ী অসদাচরণের অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা করা হয়। পরে তাঁকে কৈফিয়ত তলব করা হয় এবং তিনি ব্যক্তিগত শুনানি চান কি না, তা জানতে চাওয়া হয়। তাঁর লিখিত জবাব ও ব্যক্তিগত শুনানির বক্তব্য সন্তোষজনক বিবেচিত না হওয়ায় তদন্ত করতে কর্মকর্তা নিয়োগ করা হয়।

তদন্ত শেষে তদন্ত কর্মকর্তা মতামত দেন, অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হয়েছে। তাঁকে সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপিল) বিধিমালা অনুযায়ী চাকরি থেকে বরখাস্তের প্রাথমিক সিদ্ধান্ত হয়। পাশাপাশি তাঁকে দ্বিতীয়বার কারণ দর্শানোর নোটিশ জারি করা হয়।

দ্বিতীয়বার কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়ার বিষয়টি উল্লেখ করে বলা হয়, নোটিশের জবাব সন্তোষজনক বিবেচিত না হওয়ায় এবং একজন সরকারি কর্মচারী হয়েও সরকারপ্রধানকে ইঙ্গিত করে কুরুচিপূর্ণ ভাষায় কবিতা প্রকাশ করেছেন, তা তদন্তে সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হয়েছে। আনুষঙ্গিক প্রক্রিয়া শেষে তাঁকে চাকরিচ্যুত করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

আরো লেখাসমূহ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় ইয়োলো হোস্ট