1. multicare.net@gmail.com : সময়ের পথ :
বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ০৭:২৫ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
নড়াইলে কোরবানির জন্য প্রস্তুত ৬৪ হাজার ৭৪৮টি পশু নড়াইলে অধ্যক্ষ স্বপন কুমার বিশ্বাসকে জুতার মালা পরানোর ঘটনার প্রতিবাদে বিশাল মানববন্ধন থানায় অভিযোগ দায়ের- নড়াগাতীতে কিশোরকে মারপিটের অভিযোগে মানববন্ধন! ঈদ উপলক্ষে আলাউদ্দিন আহমেদ শিক্ষাপল্লী পার্কে সংযোজন হতে যাচ্ছে দুটি রাইডার নতুন এমপিও তালিকা ২০২২ ফাইতং উচ্চ বিদ্যালয় নাম প্রকাশিত নড়াইলে দলিল লেখক খোকন চন্দ্র রায়কে ছুুরিকাঘাত কুমিল্লায় আনসার ভিডিপি কার্যালয়ের বৃক্ষরোপণ অভিযান অনুষ্ঠিত হয়েছে নড়াইলের কালিয়ার কয়েকটি বাজারে সরকারি জমিতে গড়ে ওঠেছে অসংখ্য অবৈধ স্থাপনা। কুষ্টিয়া হাইওয়ে পুলিশের ইনচার্জ ইদ্রিসের চাঁদাবাজির দৌরাত্ত্বে পরিবহন সেক্টর অসহায় র‍্যাবের অভিযানে সন্ত্রাসী সম্রাট ও মাদক ও অস্ত্রসহ গ্রেফতার

ভাইবোনের যাবজ্জীবন, দুই খালাতো বোনকে এসিড নিক্ষেপ

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: বুধবার, ১ জুন, ২০২২
  • ২৫ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক,সময়ের পথঃচট্টগ্রামে দুই খালাতো বোনকে এসিড নিক্ষেপের দায়ে ভাইবোনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। বুধবার (১ জুন) দুপুরে চট্টগ্রামের পঞ্চম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ নারগিস আক্তার এই রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলো-শারমিন ফারজানা সাকী ও তার ছোট ভাই ইফতেখার লতিফ সাদি। ভুক্তভোগীরা তাদের খালাতো বোন। রায় ঘোষণাকালে আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিল।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১০ সালের ২ অক্টোবর চট্টগ্রামের চকবাজার জয়নগর এলাকায় ঘুমন্ত অবস্থায় খালাতো দুই বোনের শরীরে এসিড নিক্ষেপ করে শারমিন ফারজানা সাকী। প্রকৃত ঘটনা লুকাতে নিজের মুখেও এসিডের প্রলেপ দেয় সাকী। এই কাজে তাকে সহযোগিতা করে তার ছোট ভাই ইফতেখার লতিফ সাদি। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর বাবা থানায় মামলা করেন। পরে পুলিশের তদন্তে প্রকৃত ঘটনা উদঘাটন করা হয়।

তদন্ত প্রতিবেদনে পুলিশ জানায়, ঘটনার সাত দিন পর ভুক্তভোগী একজনের সঙ্গে চট্টগ্রামের এক কলেজশিক্ষকের বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। নিজের আগে ছোট খালাতো বোনের বিয়ে ঠিক হয়ে যাওয়ায় ঈর্ষান্বিত হয় সাকী। এ কারণে দুই বোনকে এসিডে ঝলসে দেয়। ভুক্তভোগীর বাবার করা মামলায় গ্রেফতারের পর ঘটনার বিস্তারিত বর্ণনা দেয় শারমিন ফারজানা সাকী।

বাদীপক্ষের আইনজীবী মেজবাহ উদ্দিন সময়ের পথ কে বলেন,‌ ‘দুই বোনকে এসিড নিক্ষেপের ঘটনায় দুই ভাইবোন জড়িত ছিল। আমরা আদালতে তা প্রমাণে সক্ষম হয়েছি। আদালত এ জঘন্য অপরাধের জন্য জড়িত দুই ভাইবোনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন। মামলায় ২২ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়।’

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

আরো লেখাসমূহ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় ইয়োলো হোস্ট