1. multicare.net@gmail.com : সময়ের পথ :
বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ০৪:১৬ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
নড়াইলে কোরবানির জন্য প্রস্তুত ৬৪ হাজার ৭৪৮টি পশু নড়াইলে অধ্যক্ষ স্বপন কুমার বিশ্বাসকে জুতার মালা পরানোর ঘটনার প্রতিবাদে বিশাল মানববন্ধন থানায় অভিযোগ দায়ের- নড়াগাতীতে কিশোরকে মারপিটের অভিযোগে মানববন্ধন! ঈদ উপলক্ষে আলাউদ্দিন আহমেদ শিক্ষাপল্লী পার্কে সংযোজন হতে যাচ্ছে দুটি রাইডার নতুন এমপিও তালিকা ২০২২ ফাইতং উচ্চ বিদ্যালয় নাম প্রকাশিত নড়াইলে দলিল লেখক খোকন চন্দ্র রায়কে ছুুরিকাঘাত কুমিল্লায় আনসার ভিডিপি কার্যালয়ের বৃক্ষরোপণ অভিযান অনুষ্ঠিত হয়েছে নড়াইলের কালিয়ার কয়েকটি বাজারে সরকারি জমিতে গড়ে ওঠেছে অসংখ্য অবৈধ স্থাপনা। কুষ্টিয়া হাইওয়ে পুলিশের ইনচার্জ ইদ্রিসের চাঁদাবাজির দৌরাত্ত্বে পরিবহন সেক্টর অসহায় র‍্যাবের অভিযানে সন্ত্রাসী সম্রাট ও মাদক ও অস্ত্রসহ গ্রেফতার

কুড়িগ্রামে আছিয়ার জীবনযাপন গোয়াল ঘরে

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: রবিবার, ২২ মে, ২০২২
  • ২৪ বার পড়া হয়েছে

কুড়িগ্রামে আছিয়ার জীবনযাপন গোয়াল ঘরে

রুহুল আমিন রুকু, কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধিঃ
ব্রহ্মপুত্র নদী দুমাস আগে কেরে নিয়েছেন আছিয়া বেগমের বসতভিটা স্বামী ছেড়ে গেছেন টাঙ্গাইলে মজুরি দিতে। দুই ছেলে কে বিবাহ দিলে তারা আলাদা বাড়ি করে সংসার জীবন যাপন করছেন অন্য জায়গায়। নিজের কোন জায়গা জমি না থাকায় খুপরি গোয়াল ঘরে বসবাস করছেন আছিয়া বেগম।
সরেজমিন রবিবার (২২ মে) দুপুরে সাক্ষাতে জানা গেছে, কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলার বেগমগঞ্জ ইউনিয়নের দক্ষিণ বালাডোবা গ্রামের জমর আলীর স্ত্রী তিনি। তবে স্বামীর হাতে টাকা পয়সা নেই। জমর আলী স্ত্রীকে খুপরি গোয়াল ঘরে বর্মপুত্র নদীর সন্নিকটে স্ত্রী আছিয়া বেগম কে আশ্রয়স্থান একাই ছেড়ে চলে যায় দিনমজুর কাজ করতে টাঙ্গাইলে অসহায় ভাবে জীবনযাপন করছেন আছিয়া বেগম।
আছিয়া বেগমের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায়, গোয়ালঘরে দুটি গরু রাখা হয়েছে সাথেই উত্তর দিকে শোবার বিছানা। গোবর-মূত্রের গন্ধ নিয়ে সেই ঘরেই বসবাস আছিয়া বেগমের। যেন নিজ এলাকায় পরবাসী তিনি। দুই ছেলে ছেলে বড় হলে তাদের বিবাহ দেয় ৩-৪ বছর পূর্বে। বাবা-মায়ের খোঁজখবর নেন না তারা থাকেন অন্য জায়গায়। আলাদা ঘর তৈরি করার অর্থ জায়গা নেই তাদের। বিকল্প ব্যবস্থা না থাকায় গোয়ালঘরে আশ্রয় হয়েছে আছিয়া বেগমের।
তিনি জানান, ব্রহ্মপুত্র নদীর ভাঙ্গনের শিকারহয় গত ২ মাস আগে। থাকার কোনো জায়গা না পাওয়ায়‘। মোল্লারহাট সংলগ্ন দক্ষিণ দিকে ব্রহ্মপুত্র নদীর সন্নিকটে আশ্রয় নেয় স্বামী-স্ত্রী । অর্থ অভাবে বসতবাড়ি করতে পারছে না তাই খুপরি গোয়াল ঘরে বসবাস করছেন। দুটি গরু থাকলেও গো খাদ্য সংকটে পড়েছেন আছিয়া বেগম। বর্তমানে যেভাবে ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে খুপরি গোয়ালঘর টি আর থাকবে কি না। গত কয়েকদিনের প্রবল বর্ষণে ব্রহ্মপুত্র নদীর ভয়াবহ ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। যেকোনো মুহূর্তে খুপরি গোয়াল ঘরটি ব্রহ্মপুত্র নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। গোয়ালঘরে থাকতে সমস্যা হয়। কিন্তু কী করমো বাবা, ঘর করারতো সামর্থ্য নাই!’
নিজের খাবার জোগাড় করতে নানা সমস্যায় পড়ছেন আছিয়া । এক সময় ছিল তাদের জীবনের সুখ-শান্তি ব্রহ্মপুত্র নদী ধ্বংস করেছে তাদের সুখ শান্তি। তিনি জানান সরকারিভাবে কোন সাহায্য সুবিধা পাইনি। আমার একটি ঘর ও থাকার জায়গা হলে আমাদের কষ্ট দূর হতো। ইউপি সদস্য জালাল মন্ডল জানান গত ঈদে ১০ কেজি চাল দেওয়া হয়েছে। সরকারি কোনো সুযোগ-সুবিধা হাতে পেলে তাকে সহযোগিতা করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

আরো লেখাসমূহ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় ইয়োলো হোস্ট