1. multicare.net@gmail.com : সময়ের পথ :
শুক্রবার, ২৭ মে ২০২২, ১১:৫৭ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
ভুমিহীন উচ্ছেদে সময় বাড়ানোসহ পুর্নবাসনে মানববন্ধন। হরিনাকুণ্ডুতে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ট্রাক্টর খাদে, চাপা পড়ে চালক নিহত হজে যাওয়ার ব্যয় জনপ্রতি আরও বাড়ল ৫৯ হাজার টাকা: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী উলিপুরে ব্রহ্মপুত্র নদীর ভাঙন ভয়াবহ রূপ কাঁদছে নদীর পাড়ের মানুষ কুমিল্লা জেলায় আদর্শ সদর উপজেলা আনসার ভিডিপি ২০২২ সমাবেশ অনুষ্ঠিত। টেক্সাসে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বন্দুকবাজের গুলি, ১৯ শিশুসহ নিহত ২১।  কালিয়ায় অজ্ঞাত যুবকের অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার। দামুড়হুদায় ইয়াবাসহ আটক হাবিবকে জাতীয় সাংবাদিক ঐক্য ফোরাম থেকে বহিস্কার। হরিণাকুণ্ডুতে জঙ্গিবাদ,মাদক ও বাল্যবিবাহ নিরোধে ক্যাম্পেইন করলেন হরিনাকুণ্ডু থানার ওসি নওগাঁয় সংরক্ষিত মহিলা মেম্বার শাকিলা এর বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগ

নরসিংদী রায়পুরা মরজাল ইউনিয়নে চরমরজাল গ্রামে ১১ বছরের কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ২৯ এপ্রিল, ২০২২
  • ২১ বার পড়া হয়েছে

নরসিংদী রায়পুরা মরজাল ইউনিয়নে চরমরজাল গ্রামে ১১ বছরের কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ।
সাইফুল ইসলাম রুদ্র, নরসিংদী জেলা প্রতিনিধি:
নরসিংদী রায়পুরা উপজেলা মরজাল ইউনিয়নের চরমরজাল গ্রামে গাংকুল পাড়া এলাকায় ১১ বছরের কিশোরীকে দর্শন চেষ্টার অভিযোগ করলে তার মা তাছলিমা।
রায়পুরা উপজেলার মরজাল ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড চরমরজাল এলাকার বাসিন্দা মোহাম্মদ আলী (৫০) তিনি গত ২৭ এপ্রিল, রোজ- বুধবার আনুমানিক সকাল ১১.০০ টায় তার জমিতে কাজ করতে ছিলো। হঠাৎ সে তাছলিমার মেয়ে ১১ বছরের কিশোরীকে দেখে তাকে ডেকে নিয়ে যায়। এক পর্যায়ে মোহাম্মদ আলী ১১ বছরের কিশোরীকে তার গায়ের বিভিন্ন অংশে জোরপূর্বক স্পর্শ করতে থাকে। পরে ঐ কিশোরী উচ্চসূরে কান্না শুরু করলে এক পর্যায়ে আশেপাশের মানুষের অপস্থিতি টের পেয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায় মোহাম্মদ আলী ।
এ ঘটনায় চরমরজাল এলাকায় বেপক চালচঞ্চ্য অবস্থা সৃষ্টি হলে এক পর্যায়ে কোনো উপায় না পেয়ে তার মা তাছলিমা বেগম সংবাদ কর্মী সাইফুল ইসলাম রুদ্রকে ডেকে নিয়ে যায়।
তাছলিমার বক্তব্য অনুযায়ী জানা যায় যে, মোহাম্মদ আলী সম্পর্কে তার উকিল বাবা হন। কিন্তু সে আমার উকিল বাবা হয়ে আমার মেয়ের উপর দর্শন চেষ্টা চালায় এটা ভাবতেই আমার অবাক লাগে। সে আমার মেয়েকে একা পেয়ে ক্ষেতের ভেতর জোরপূর্বক টেনে নিয়ে টানাটানি শুরু করে এবং তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় স্পর্শ করে। আমি বাড়িতে রান্না করা অবস্থায় আমার মেয়ে আমার কাছে দৌড়ে এসে কান্না করতে করতে এই সমস্ত অভিযোগ করে। আমি মাননীয় পুলিশ সুপারের নিকট বিনীতভাবে প্রার্থনা করছি তিনি যেনো সুষ্ঠ তদন্ত করে লম্পট মোহাম্মদ আলীকে কঠিন বিচারের আওতায় নিয়ে আসে। যাতে ভব্যিষতে এমন হয়রানীতে অন্য কোনো কিশোরীকে না পরতে হয়।
এ বিষয়ে সংবাদ কর্মী সাইফুল ইসলাম মোহাম্মদ আলীর বাড়িতে উক্ত ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি তা অস্বীকার করেন। এবং তিনি জানান, এটি তার পারিবারিক বিষয়। তিনি তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগকে মিথ্যা বলে আক্ষা দেন। তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র হচ্ছে বলে জানান। তিনি জানান এটি তাদের পারিবারিক বিষয়। এই ঘটনা স্থানীয় ইউ.পি মেম্বারদেরকে নিয়ে বসে এটি সমজতা করবেন বলে জানান তিনি।
এই মোহাম্মদ আলীর বিষয়ে আরো চাঞ্চ্যকর তথ্য এসেছে যা আগামী পর্বে তোলে ধরা হবে।
এদিকে সংবাদ কর্মী সাইফুল ইসলাম রুদ্রকে রিতা বেগম মোবাইল ফোনে জানান- আমার আপন বোনকে বিয়ে দিয়ে ছিলাম মোহাম্মদ আলীর ছেলের কাছে। বিবাহ দেওয়ার পর কিছুদিন যেতে না যেতেই ঘুমেরবান ধরে আমার বোনকে জড়িয়ে ধরে দর্শন চেষ্ট চালায়। এবিষয়ে একাধিক ঘটনা ঘটলেও মানসম্মানে ভয়ে প্রথমে স্বীকার না করলেও পরবর্তীতে কান্না কণ্ঠে আমার বোন এই ঘটনার কথা আমার কাছে স্বীকার করেন। সে তার আপন ছেলের বৌউকে ছাড় দিচ্ছে না। তার উপরও বার বার দর্শনের চেষ্টা চালাই করে।
এবিষয়ে একই এলাকার ইউ.পি সদস্য ও স্থানীয় লোকজনকে অবগত করলে টাকার বিনিময়ে তারা উক্ত ঘটনা ধামাচাপা দেওয়া চেষ্টা চালাই বলে জানান তাছলিমা। আমাদেরকে মানসম্মান হানীর ভয় দেখায়। কোনো উপায় না পেয়ে আমি রায়পুরা থানায়ও যোগাযোগ করি। কিন্তু আমার ভাই উক্ত ঘটনা সমঝতা করার জন্য চেষ্টা চালাচ্ছে।
এ বিষয়ে রায়পুরা থানার অফিসার ইনচার্জ আজিজুলকে সংবাদ কর্মী রুদ্র মোবাইল ফোনে জানতে চাইলে তিনি জানান- এই বিষয়ে আমি কিছুই জানি না। কিন্তু যেহেতু আপনি অবগত করেছেন তাই আমি সঠিক তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত দোষীদের আইনের আওতায় নিয়ে আসবো।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

আরো লেখাসমূহ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় ইয়োলো হোস্ট