1. multicare.net@gmail.com : সময়ের পথ :
সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ০২:৪২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
বিএসএনপিএস কমিটি গঠন:সভাপতি আবু বকর সিদ্দিক সাধারণ সম্পাদক শামছুল আলম রামগড়ে বিজিবির ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ বিশ্ব দরবারে উন্নয়ন মাইলফলক। এফবিজেও’র বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ৪ঠা ডিসেম্বরের মহাসমাবেশ সফল করতে নগরীর চান্দগাঁও কাপ্তাই রাস্তার মাথায় প্রচারণা ও লিফলেট বিতরণ। নওগাঁ জেলায় প্রথম স্থানীয় প্রবীণ এবং উদীয়মান শিল্পীগন দের টেলিফিল্ম। চট্টগ্রাম চান্দগাঁও থানাধীন শুকতারা পত্রিকার দ্বিতীয় বর্ষপূর্তি উদযাপন। কক্সবাজার রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির দায়িত্বে চেয়ারম্যান মার্শাল ও এড. অপু স্মরনকালের সেরা জনসমুদ্রে রুপ নিবে চট্টগ্রামের মহাসমাবেশ- হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর। ফখরুজ্জামান চট্টগ্রামের নতুন জেলা প্রশাসক

সংবাদ প্রকাশের পরেও ব্যাবস্থা নেয়নি কতৃপক্ষ ! কালিয়ায় অযন্তে ও অবহেলায় পড়ে আছে মুক্তিযোদ্ধাদের ইতিহাস সম্বলিত স্মৃতিস্তম্ভ!

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: বুধবার, ১৭ আগস্ট, ২০২২
  • ৪৮ বার পড়া হয়েছে

ফলোআপ নিউজ

সংবাদ প্রকাশের পরেও ব্যাবস্থা নেয়নি কতৃপক্ষ !
কালিয়ায় অযন্তে ও অবহেলায় পড়ে আছে মুক্তিযোদ্ধাদের ইতিহাস সম্বলিত স্মৃতিস্তম্ভ!

মোঃ হাচিবুর রহমান, কালিয়া (নড়াইল) প্রতিনিধিঃ

নড়াইলের কালিয়া উপজেলার নড়াগাতী থানার ৬ নং খাশিয়াল ইউনিয়নের চোরখালী গ্রামে গণহত্যায় ব্যবহৃত বদ্ধভূমি সংরক্ষন ও মুক্তিযোদ্ধাদের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস সম্বলিত স্মৃতিস্তম্ভের রক্ষনাবেক্ষনের কোন পদক্ষেপ নেইনি প্রশাসন। নির্মানকালের সাড়ে তিন বছর অতিবাহিত হলেও অযন্তে ও অবহেলায় পড়ে আছে এখনো।

উল্লেখ্য গত বছরের ৬ সেপ্টেম্বর আঞ্চলিক দৈনিক সমাজের কথাসহ কয়েকটি জাতীয়, আঞ্চলিক ও অনলাইন পোর্টালে “কালিয়ায় অযন্তে ও অবহেলায় মুক্তিযোদ্ধাদের স্মৃতিস্তম্ভ” শিরোনামে খবর প্রকাশিত হয়। ইউএনও কালিয়া মোঃ আরিফুল ইসলাম স্মৃতিস্তম্ভটি রক্ষনাবেক্ষনের ব্যপারে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে ব্যবস্থা গ্রহনের আশ্বাস দেন। কিন্তু বছর হতে চললেও এখনো কোন পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি।

স্মৃতিস্তম্ভের উত্তর ও দক্ষিন পাশের স্টীলের বেষ্টনীর ওপরের সুদৃশ্যমান অংশটুকু কে বা কারা ভেঙ্গে নিয়ে গেছে। এছাড়া ভিতরে আবর্জনার স্তুপ এখনো দৃশ্যমান, ওয়াশ রুম, বেসিং, ইলেকট্রিক সুইট-সকেট সবই ভেঙ্গে ফেলেছে উশৃঙ্খল ও মাদকাসক্তরা। কতৃপক্ষের দায়িত্বহীনতার কারণেই স্মৃতিম্বটি স্মৃতিহীন হয়ে পড়ছে বলে সচেতন মহল মনে করেন। সোলার প্লান্টের মাধ্যমে নিজস্ব বিদ্যুৎ ব্যবস্থা থাকলেও অদ্যবধি আলো জ্বলেনি সেখানে। এছাড়া স্মৃতিস্তম্ভের ভিতরে গভীর নলকূপ ও ওয়াশরুমের ছাদে একটি ৫০০ লিটার টেংকি থাকলেও দায়িত্বপ্রাপ্ত কোন লোক না থাকায় আগাছায় ভরে গেছে স্তম্ভের চারপাশ। মূল গেইটে একটি নামমাত্রা তালা লাগানো থাকলেও বেষ্টনী ভেঙ্গে যাওয়ায় অতি সহজেই মাদকাসক্তরা সহজেই টপকে ভিতরে গিয়ে আড্ডা মারে বলে জানা যায়। স্মৃতিফলকে জাতীর সুর্য্য সন্তান নড়াইল জেলার মুক্তিযোদ্ধাদের সংক্ষিপ্ত ইতিহাস লেখা থাকলেও কয়েকটি লাইন মুছে গেছে। স্থাণীয় মুক্তিযোদ্ধারা মনে করেন, এটা মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে তামাশার শামিল।
এ বিষয়ে কালিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আরিফুল ইসলাম এ প্রতিবেদককে বলেন, এ পর্যন্ত এলাকাবাসী কোন অভিযোগ দেয়নি, তাই ব্যবস্থা নেওয়া সম্ভব হয়নি। তাদের অভিযোগ পেলে মহান এ স্মৃতিস্তম্ভটি রক্ষনাবেক্ষনের ব্যপারে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহন করবেন বলে তিনি জানান।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

আরো লেখাসমূহ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় ইয়োলো হোস্ট