1. multicare.net@gmail.com : সময়ের পথ :
সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ০৪:৫১ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
বিএসএনপিএস কমিটি গঠন:সভাপতি আবু বকর সিদ্দিক সাধারণ সম্পাদক শামছুল আলম রামগড়ে বিজিবির ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ বিশ্ব দরবারে উন্নয়ন মাইলফলক। এফবিজেও’র বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ৪ঠা ডিসেম্বরের মহাসমাবেশ সফল করতে নগরীর চান্দগাঁও কাপ্তাই রাস্তার মাথায় প্রচারণা ও লিফলেট বিতরণ। নওগাঁ জেলায় প্রথম স্থানীয় প্রবীণ এবং উদীয়মান শিল্পীগন দের টেলিফিল্ম। চট্টগ্রাম চান্দগাঁও থানাধীন শুকতারা পত্রিকার দ্বিতীয় বর্ষপূর্তি উদযাপন। কক্সবাজার রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির দায়িত্বে চেয়ারম্যান মার্শাল ও এড. অপু স্মরনকালের সেরা জনসমুদ্রে রুপ নিবে চট্টগ্রামের মহাসমাবেশ- হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর। ফখরুজ্জামান চট্টগ্রামের নতুন জেলা প্রশাসক

লামায় যুব উন্নয়ন সমবায় সমিতি লিঃ অফিস উদ্বোধন করেন ফাতেমা পারুল

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: বুধবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৪৫ বার পড়া হয়েছে

লামায় যুব উন্নয়ন সমবায় সমিতি লিঃ অফিস উদ্বোধন করেন ফাতেমা পারুল

নিজস্ব প্রতিবেদক :
বান্দরবানের লামায় ফাইতং ইউনিয়ন ফাইতং যুব উন্নয়ন সমবায় সমিতি লিঃ রেজিঃ নং বা/বান ৭১৫ সমিতি খেদারবান স্টেশন অফিস উদ্বোধন করা হয়েছে। (১২ সেপ্টেম্বর) সোমবার সকাল ১০টায়। সমিতি অর্থ সম্পাদক মোহাম্মদ ইব্রাহিম কুরআন তেলওয়াত মাধ্যমে অফিসে ফিতা কেটে শুভ উদ্বোধন করেন, অনুষ্ঠান অতিথি জেলা পরিষদ সদস্য ও লামা উপজেলা মহিলা আওয়ামিলীগ সভাপতি ফাতেমা পারুল।

এর শুভউদ্বোধনী অনুষ্ঠান ফাইতং যুব উন্নয়ন সমবায় সমিতির প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি ইসমাইলুল করিম এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভা বক্তব্য রাখেন অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি বান্দরবান জেলা পরিষদ সদস্য ও লামা উপজেলা মহিলা আওয়ামিলীগ সভাপতি ফাতেমা পারুল।

আরো উপস্থিত ছিলেন বিশেষ অতিথি হিসেবে ফাইতং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ ওমর ফারুক, সাবেক চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামিলীগ আহবায়ক মো.জালাল উদ্দিন কোম্পানি। সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন কৃষক লীগের সভাপতি, মুহাম্মদ জুবাইরুল ইসলাম (জুবাইর), সাবেক সহসভাপতি ও সাবেক ইউপি সদস্য,মো. শহিদুল্লাহ মিন্টু, সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহামুদুর রহমান শুক্কুর, ৩টি সমিতি দায়িত্ব প্রাপ্ত ও যুবলীগ নেতা মোহাম্মদ ইয়াছিন, ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসাইন জয়, সমাজ সর্দার মো.নুরুল ইসলাম ৪,৫,৬নং ওয়ার্ড মহিলা মেম্বার শাহেদা ইয়াসমিন, সমিতি সাধারণ সম্পাদক মাহ্ফুজুল করিম,অর্থ সম্পাদক মোহাম্মদ ইব্রাহিম, মো. জাকির হোসেন, মো.বুলবুল সমিতি সকল সদস্য সহ সাংবাদিক, গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সমিতি সদস্য সকল অতিথিবৃন্দকে ফুলের তোরা দিয়ে বরণ করে নেন। এরপর অতিথিরা বক্তব্যে দেন সমিতি সার্বিক উন্নয়ন সহযোগিতা কামনা করেন।

সমিতি সভাপতি বক্তব্য বলেন, আজ আমাদের আমন্ত্রণে সাড়া দেওয়া অতিথিদের জানাই সমিতির পক্ষ থেকে অভিনন্দন ও অসংখ্য ধন্যবাদ।

আপনারা জানেন ফাইতং ইউনিয়নে ফাইতং যুব উন্নয়ন সমবায় সমিতি নামে একমাত্র আমরাই যাত্রা শুরু করেছি। গত ১/৬/২১ সালে ২০ জন যুবকদের নিয়ে আমি একটি সমিতি করার উদ্যোগ নেই, এরমধ্যে সকল সদস্যদের মতামতের ভিত্তিতে লামা সমবায় অফিসে যোগাযোগ করি রেজিষ্ট্রেশন করার জন্য, সমবায় অফিসার মহোদয় যে নিয়মকানুন সুপরামর্শ দিয়েছিলেন সেই গুলো মেনে হাটি হাটি পা পা করে সমিতির রেজিষ্ট্রেশন পাই ৩/৩/২০২২ সালে যার রেজিঃ (নং ৭১৫) । সমবায় শক্তি সমবায় মুক্তি, আজকের সঞ্চয় আগমী দিনের ভবিষ্যৎ এই শ্লোগান’কে সামনে রেখে আজ যুব উন্নয়ন সমবায় সমিতির সদস্য ৭৫ জন আমরা।

সমবায় হলো এমন একটি দর্শন যেখানে সমমনাসম্পন্ন বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ মেধা, শ্রম, পুঁজি বিনিয়োগ করে পারস্পরিক সহযোগিতার মাধ্যমে নিজেদের ভাগ্য উন্নয়নের চেষ্টা করাই হলো যুব উন্নয়ন সমবায়। মানুষ সৃষ্টির সেরা জীব। আর মানুষ কখনও একা থাকতে পারে না। বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ভাষায় ‘‘একলা মানুষ কখনোই পূর্ণ মানুষ হতেপারে না। অনেকের যোগে তবেই সে ষোল আনা পেয়ে থাকে।

‘‘মানুষের এরকম একত্রে থাকা, একত্রে বিভিন্ন প্রতিকুল পরিবেশ মোকাবিলা করা ইত্যাদি বিষয়ে থেকে মানুষ সমবায় বা কো-অপারেটিভ গঠন করে। একই উদ্দেশ্য সমবেতভাবে কাজ করার অর্থ হচ্ছে সমবায়। নিজেদের আর্থ সামাজিক উন্নয়নের জন্য একই শ্রেণি ও পেশার সঙ্গে সম্পৃক্ত সমমনা কিছু সংখ্যক মানুষ যখন একত্রিত হয়ে কোন সংগঠন বা সংস্থা গঠন করে তখন ঐ সংস্থাকে সমবায় অথবা সমবায় সমিতি বলা হয়ে থাকে। এর মধ্যে একঝাক যুবক দের নিয়ে গঠিত ফাইতং যুব উন্নয়ন সমবায় সমিতি।

মানুষের চারিত্রিক স্বভাব অনেকে মিলে একত্রে বাস করা। একলা মানুষ কখনোই পূর্ণ মানুষ হতে পারে না। দল বেঁধে থাকা, কাজ করা মানুষের ধর্ম বলেই সেই ধর্ম সম্পূর্ণভাবে পালন করাতেই মানুষের কল্যাণ, তার উন্নতি। প্রাচীন সমাজেও সমবায়ী প্রচেষ্টা লক্ষনীয়। সমবায় সংগঠনের সকল সদস্যের সমান অধিকার। এখানে ছোট-বড়, ধনী-দরিদ্র, নারী-পুরুষের পার্থক্য নেই। সমবায়ের সদস্যরা পারস্পরিক সহযোগিতা নিয়ে নিজেদের নিয়ে নিজেদের ভাগ্যের পরিবর্তন করার লক্ষ্যে সমিতি গঠন করে। সংগঠনের সকল সদস্যের একসাথে সাহায্যের প্রয়োজন হয় না। কেননা সদস্যরা একে অপরের মঙ্গলের জন্য পারস্পরিক সহযোগিতা বিনিময় করে। সহযোগিতা ভোগি ও সহযোগিতা প্রদানকারী উভয়ই সংগঠনের অভিন্ন অংশ যার ফলে তাদের স্বার্থের সংঘাত থাকে না।

প্রকৃত অর্থে সমবায়ের মূলনীতিই হলো সবার প্রতি সহযোগিতামূলক মনোভাবের সঞ্চার ঘটানো। অর্থের কারণে মানুষ বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত হচ্ছে এবং প্রতিনিয়ত তারা ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য সংগ্রাম করে যাচ্ছে। অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য মানুষ যুগে যুগে বিভিন্ন পদ্ধতি আবিষ্কার করেছে, তার মধ্যে একটি অন্যতম এবং বিশ্বের কোটি মানুষের স্বীকৃত মাধ্যমের নাম সমবায়। পরিশ্রমী সংগ্রামী মানুষের আত্মবিশ্বাসের জায়গা সমবায়। শ্রমজীবী উৎপাদনশীল মানুষদের মনে ‘আমরাও পারি’ এই সত্যকে জাগিয়ে তোলে। এইপ্রেক্ষাপটে সমবায় সমিতি একটি সাধারণ প্রতিষ্ঠান নয়। সমবায় সমিতি এমন একটি জনকল্যাণ ও উন্নয়নমূলক আর্থ-সামাজিক প্রতিষ্ঠান যার মধ্যে থাকে গণতন্ত্র,সম্মিলিত কর্মপ্রচেষ্টা, খাদ্য নিরাপত্তা।মানুষের দারিদ্রতা দূর করতে হলে সমবায়ের বিকল্প নেই।

অর্থনৈতিক নিরাপত্তার জন্য একটি সমবায় সমিতি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে। একটি সমবায় সমিতিতে যেহেতু সদস্যদের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র সঞ্চয় জমা করার এবং সমবায় সমিতি ক্ষুদ্র বিনিয়োগ করার সুযোগ রয়েছে সেহেতু সদস্যরা তাদের সঞ্চয়কৃত টাকার নিশ্চয়তা পেয়ে থাকেন। সমবায় সমিতিতে সকল সদস্যের সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা থাকায় সমিতির পূঁজি বিনিয়োগের ক্ষেত্রে সদস্যদের মতামত থাকে যা অন্যান্য কোন ক্ষেত্রে সম্ভব নয়। সমবায়ের আবেদন ব্যক্তিকেন্দ্রিক নয় বরং সামষ্টিক।

আমি সমিতির কল্যান কামনা করি এবং সবাইকে নিয়ে যেন আমরা সামনে এগিয়ে যেতে পারি এ আশাবাদ ব্যক্ত করি, আমি আশা করবো সিনিয়ররা আমাদের এগিয়ে যাওয়ার সারথি হবেন এবং পরামর্শ দিয়ে পাশে থাকবেন।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

আরো লেখাসমূহ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় ইয়োলো হোস্ট