1. multicare.net@gmail.com : সময়ের পথ :
সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ০৫:০৯ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
বিএসএনপিএস কমিটি গঠন:সভাপতি আবু বকর সিদ্দিক সাধারণ সম্পাদক শামছুল আলম রামগড়ে বিজিবির ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ বিশ্ব দরবারে উন্নয়ন মাইলফলক। এফবিজেও’র বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ৪ঠা ডিসেম্বরের মহাসমাবেশ সফল করতে নগরীর চান্দগাঁও কাপ্তাই রাস্তার মাথায় প্রচারণা ও লিফলেট বিতরণ। নওগাঁ জেলায় প্রথম স্থানীয় প্রবীণ এবং উদীয়মান শিল্পীগন দের টেলিফিল্ম। চট্টগ্রাম চান্দগাঁও থানাধীন শুকতারা পত্রিকার দ্বিতীয় বর্ষপূর্তি উদযাপন। কক্সবাজার রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির দায়িত্বে চেয়ারম্যান মার্শাল ও এড. অপু স্মরনকালের সেরা জনসমুদ্রে রুপ নিবে চট্টগ্রামের মহাসমাবেশ- হেলাল আকবর চৌধুরী বাবর। ফখরুজ্জামান চট্টগ্রামের নতুন জেলা প্রশাসক

দুলাভাইয়ের সাথে পালিয়ে বিয়ে কালিয়ায় স্কুল ছাত্রী নিখোঁজের দ্বায় চাপালেন চা দোকানীর ওপর।

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: সোমবার, ১ আগস্ট, ২০২২
  • ৪৯ বার পড়া হয়েছে

দুলাভাইয়ের সাথে পালিয়ে বিয়ে
কালিয়ায় স্কুল ছাত্রী নিখোঁজের দ্বায় চাপালেন চা দোকানীর ওপর।

মোঃ হাচিবুর রহমান, কালিয়া ( নড়াইল) প্রতিনিধিঃ

নড়াইলের কালিয়া উপজেলার নড়াগাতী থানার ১ নং ওয়ার্ড চোরখালী গ্রামের নাছিরুল মোল্যার মেয়ে ও বড়দিয়া বালিকা বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেনী পড়–য়া ছাত্রী শামীমা আক্তার কনা নিখোঁজের ২ মাস পরে সন্ধান মিলেছে ঢাকায়। সে এখন ভগ্নিপতির স্ত্রী হিসাবে ঢাকা ভাড়া বাসায় অবস্থান করছে বলে জানিয়েছেন ওই মেয়ের মা মাজেদা বেগম, বাবা ও তার চাচা আমযাদ মোল্যা। ১১মে নিখোঁজের পর নড়াগাতী থানায় সাধারণ ডায়েরী করা হলেও থানা পুলিশ বা র‌্যাব উদ্ধার করতে পারেনি শামীমাকে। ৩১ জুলাই (শনিবার) বিকেলে শামীমাদের বাড়ীতে গেলে এ তথ্য জানান তার স্বজনরা।
শামীমার মা মাজেদা ও চাচা আমজাদ মোল্যা জানান, ২০১৬ সালে শামিমার বড় বোন নাছরিনের সাথে রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি থানার নারুয়া গ্রামের শাহিদ বিশ্বাসের ছেলে ও ঢাকার ব্যবসায়ী তালহা বিশ্বাসের সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের ৩ মাস পরে তারা ঢাকায় অবস্থান করে। তাদের ৪ বছরের একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। চলতি বছরের মে মাসের ১১ তারিখে শামিমা আক্তার কনা নিখোঁজ হলে বিষয়টি তার স্বজনরা স্যোসাল মিডিয়ায় ভাইরাল করে। কিছু দিন পর ফয়সাল নামে একটি ছেলে এ্যাপসের মাধ্যমে শামীমার পরিবারকে অপহরন হয়েছে মর্মে এলোমেলো কথা বলতে থাকে এবং আমাদের কাছ থেকে ওই আইডি নিয়ে আরিফও কথা বলায় ও বিভিন্ন ডকুমেন্ট তাকে সরবরাহ করছে সন্দেহে তার বিরুদ্ধে মৌখিক অভিযোগ দিলে পুলিশ তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে।
স্থাণীয় সুত্রে জানা যায়, শামীমা নিখোঁজের পর থেকে আরিফ মল্লিক ও খাশিয়াল ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি মোল্যা মিজানুর রহমান ও সাধারান সম্পাদক মোল্যা আনোয়ার হোসেন শামীমাকে উদ্ধারে তার স্বজনদের নিয়ে বিভিন্ন দপ্তরে যাতায়াত করা সত্বেও আরিফের নামে অভিযোগ আনা ও থানা পুলিশ দিয়ে হয়রানী করায় তার মানসম্মান ক্ষুন্ন হয়। এ বিষয়ে স্থাণীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ আরিফের সরলতার বিষয়ে অবগত করলেও থানা পুলিশ তাকে হয়রানী করে শামীমার স্বজনদের অভিযোগে, এটা দুঃখজনক। ওই মেয়ে এখন ভগ্নিপতির সংসারে অথচ নিরীহ আরিফকে সন্দেহ করে হয়রানী করাটা ঠিক হয়নি বলে তারা জানান।
এ দিকে আরিফ মল্লিক জানান, ফয়সাল নামে ছেলেটির সাথে শামীমার ভাইয়ের কথা হতো নিয়মিত এবং সেই তাকে তথ্য সরবরাহ করেছে।
খাশিয়াল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি খান আজাদ আলী, ১ নং ওয়ার্ডের সভাপতি মোল্যা মিজানুর রহমান ও সাধারান সম্পাদক মোল্যা আনোয়ার হোসেন বলেন, আরিফ মল্লিক আওয়ামীলীগের একজন একনিষ্ঠ কর্মী। তার এলাকার মেয়ে নিখোঁজের বিষয়ে উদ্ধার তৎপরতায় সে আমাদের নিয়ে অগ্র ভূমিকা পালন করেছে সব সময়। তাকে এভাবে হয়রানী করায় তার মান সম্মান ক্ষুন্ন হয়েছে ঠিক হয়নি।

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

আরো লেখাসমূহ

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
প্রযুক্তি সহায়তায় ইয়োলো হোস্ট